Banglatechblog - বাংলা টেক ব্লগে আপনাকে স্বাগতম তো আজকের এই
পোস্টে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো।


যে কিভাবে আপনারা একটি SEO ফ্রেন্ডলি post লিখবেন আপনার  আপনার ব্লগ সাইট এ |


 SEO ছাড়া কিন্তু আপনি খুব সহজেই আপনার সাইটটিকে Rank আনতে পারবেন না আপনার সাইট যদি rank আনতে প্রয়োজন হয় তাহলে অবশ্যই আপনাকে এসইও জানতে হবে |

 একটি SEO ফ্রেন্ডলি পোস্ট লেখার সময় অবশ্যই আপনাকে
অনেক বিষয় লক্ষ রাখতে হবে ( Title, meta data, post url,
image ALT tag, H1,H2 tag, ETC |



Blogspot SEO Guide 2020 bangla


1. Post Tittle

একটি পোষ্টের Title হচ্ছে ঐ পোষ্টের সমগ্র আর্টিকেলের সারমর্ম বা সারসংক্ষেপ। Post র  টাইটেলের মাধ্যমে কোন পোষ্টের মধ্যে কি আছে বা পোষ্টটি কতটুকু গুরুত্বপূর্ণ হবে তা সংক্ষেপে বোঝা  যায়। 

যে ভাবে একজন ভিজিটর পোষ্টের Title  দেখে পোষ্টেটির গুরুত্ব সম্পর্কে বুঝতে পারেন, ঠিক তেমনি সার্চ ইঞ্জিন বট পোষ্টের title দেখে পোষ্টের সমগ্র আর্টিকেলের গুরুত্ব অনুধাবন করতে পারে। 

এ ক্ষেত্রে আপনি পোষ্টের Title যত ভাল মানের Keywords এর সমন্বয়ে সাজিয়ে গুজিয়ে তৈরী করতে পারবেন, সার্চ ইঞ্জিনে আপনার post  সার্চ ইঞ্জিনের রেজাল্ট পেজে তত উপরে অবস্থান নিতে সক্ষম হবে।  সার্চ ইঞ্জিন হতে একটি ব্লগে যে পরিমান visitor আসে, তার প্রায় ৮০% নির্ভর করে Post Title এর উপর।

2. Meta Descriptions

Title র পরেই হচ্ছে পোষ্টের অভ্যন্তরিন Meta Descriptions এর অবস্থান। কারণ Search Engine একটি পোষ্টের Title র পরেই পোষ্টের Meta Descriptions কে গুরুত্ব দিয়ে থাকে। 

কোন ব্যক্তি যখন সার্চ ইঞ্জিনে একটি কীওয়ার্ড লিখে সার্চ করেন, তখন Search Engine  যদি ঐ কীওয়ার্ডটি পোষ্ট টাইটেলের মধ্যে না পায়, তাহলে Search Engine কীয়ার্ডটি পোষ্টের Meta Descriptions এর ভীতরে খুজে। 

কীওয়ার্ডটি Meta Descriptions এর ভীতরে পাওয়া গেলে Search Engine  রেজাল্টের পাতার আপনার পোষ্টটি শীর্ষে আসার অধিক সম্ভাবনা তৈরি হয়ে যায়।

03.পোষ্টের Permalink Structure

যে কোন পোষ্টের সুগঠিত Url দেখতে যেমন সুন্দর মনে হবে, তেমনি Search ইঞ্জিনের কাছেও অনেক গুরুত্ব বহন করতে পারবে। আপনি যে বিষয় নিয়ে পোষ্ট করছেন সে বিষয়ের সাথে মিল রেখে পোষ্টের Permalink গঠন করবেন। 

কারন পোষ্টের Permalink টি যদি পোষ্টের গুরুত্বপূর্ণ কীওয়ার্ডের সাথে মিল রেখে করেন, তাহলে Search Engine  ক্যোয়ারী থেকে সার্চ রেজাল্টের ভাল অবস্থানে আসার অধিক সম্ভাবনা তৈরি হয়ে যাবে। 

অনেকে এ বিষয়টিকে কোন গুরুত্ব না দিয়ে বিষয় ভিত্তিক Keywords ছাড়াই কোন রকম একটি  blog Url লিখে থাকেন।


উদাহরণ স্বরূপ- ধরুন আপনি SEO বিষয়ে পরিপাঠি করে একটি পরিপূর্ণ post লিখলেন কিন্তু পোষ্টের Url টি দিলেন 
www.belalblog.com/2020/01/post30.html. এ ক্ষেত্রে সার্চ ইঞ্জিন পোষ্টের Url থেকে ব্লগের আর্টিকেল সম্পর্কে কিছুই বুঝতে পারবে না। অন্যদিকে Url টির গঠন যদি www.belalblog.com/2020/01/SEO হয়, তাহলে Search Engine  সহজে বুঝতে পারবে পোষ্টটি SEO সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে লিখা।

04.Image ALT TAG.

কিভাবে post এর  Image Optimize করতে হয় ? Image হচ্ছে blog পোষ্টের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। পোষ্টে Image ব্যবহার করে যে কোন বিষয় সম্পর্কে পাঠকদের সুস্পষ্ট ধারনা দেয়া যায়। 

এমন কিছু post থাকে যে গুলিতে Image ব্যবহার না করলে পাঠকদের পরিপূর্ণভাবে ধারনা দেয়া সম্ভবই হয় না।অন্যদিকে Search  ইঞ্জিনও ব্লগের Image গুলিকে আলাদাভাবে সার্চ রেজাল্টে নিয়ে আসে। 

তাই প্রত্যেকটি ইমেজ আপলোড এরপর আপনি অবশ্যই ইমেজ ALT ট্যাগ ব্যবহার করবেন কারণ এই ALT ট্র্যাক ধরেই কিন্তু গুগলের রোবট অথবা যে কোন Search ইঞ্জিন আপনার ইমেজটি কে আপনার সামনে এসে হাজির করে

05.Heading Tags.

সাধারণত Blog এর  বিভন্ন গুরুত্বপূর্ণ Heading Tags গুলি H1, H2, H3  আকারে লিখা হয়ে থাকে। Search Engine অপটিমাইজেশনের ক্ষেত্রে এই ধরনের Heading Tags গুলি অনেক গুরুত্ব বহন করে থাকে। 

আপনি যখন একটি post লিখবেন, তখন পোষ্টের মধ্যে সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ Heading Tag টি H1 আকারে লিখবেন। কারণ Search  ইঞ্জিনের কাছে যে কোন ব্লগের H1 ট্যাগটা অন্যান্য Heading Tag এর চাইতে বেশী গুরুত্বপূর্ণ হয়ে থাকে। 

তারপর বাকী ট্যাগগুলি H2, H3 এবং H4 হয়ে ক্রমান্বয়ে Bold কিংবা Italic করে ব্যবহার করবেন।


06.Internal Links. 

আপনি যে বিষয় নিয়ে post করছেন সেই পোষ্টের ভীতরে কিছু Word এর সাথে আপনার ব্লগের অন্য আরেকটি পোষ্ট link করে দেয়াকেই Internal Linking বলা হয়ে থাকে। এটি আপনার ব্লগের back লিংক বৃদ্ধি করার পাশাপাশি নুতন পোষ্টটি দ্রুত Crawl করে Index হতে সাহায্য করবে।


07.নিয়মিত পোষ্ট পাবলিশ করা

প্রতিদিন কমপক্ষে একটি করে ভালমানের পোষ্ট share করতে পারলে আপনার ব্লগে প্রচুর পরিমানে ভিজিটর বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি Search Engine বট প্রতিনিয়ত আপনার ব্লগে ভিজিট করতে থাকবে। 

ফলে ব্লগের Crawl Rate বৃদ্ধি হওয়ার সাথে সাথে পোষ্ট দ্রুত Index হতে থাকবে। তাছাড়া যে Blog নিয়মিত পোষ্ট শেয়ার করে সে ব্লগের জনপ্রিয়তা পাঠকের কাছে দ্রুত বাড়তে থাকে।

Post a Comment

Previous Post Next Post