গুগল অ্যাডসেন্স পাওয়ার উপায়【 এডসেন্স নিয়ে যত ধরনের প্রশ্ন】Adsense Approval Trick 2020 Bangla


গুগল অ্যাডসেন্স  পাওয়ার উপায়: কথা বলব আজকে Google Adsense নিয়ে যে কিভাবে আমরা খুব সহজে আমাদের ব্লগের জন্য গুগল এডসেন্স পেতে পারি  ।   Blog তৈরি করার পর থেকে আমরা চিন্তা করি যে কিভাবে আমাদের ব্লগ থেকে ইনকাম করতে পারি  ।  Blog থেকে আয় করার সবচেয়ে ভালো যে মাধ্যম সেটি হল গুগল এডসেন্স  । এই গুগল এডসেন্স পাওয়ার জন্য আপনাকে অবশ্যই কিছু নিয়ম পালন করতে হবে ।


 আজকে আমি আপনাদের সাথে Google Adsense নিয়ে যত ধরনের প্রশ্ন রয়েছে সেই প্রশ্নগুলো উপস্থাপন করবো এবং সেগুলোর উত্তর আমি আবার দিয়ে দিব তো আজকের এই পোস্টটি যদি আপনি সঠিক ভাবে মনোযোগ সহকারে পড়েন এবং এই    রুলস মেনে Google এর কাছে আবেদন করেন তাহলে আমি 1000% সিওর আপনি  ব্লগের জন্য গুগল এডসেন্স পেয়ে যাবেন ।



google adsense approal tricks bangla 2020

 গুগল অ্যাডসেন্স  পাওয়ার উপায় 2020

Google Adsense  পাওয়ার জন্য বেসিক নিয়ম গুলো রয়েছে সেগুলো আমি সংক্ষিপ্ত বর্ণনা করছি এবং তারপর আমি পরিপূর্ণভাবে  বিস্তারিত আলোচনা করবো আশা করি এই আলোচনার মধ্যে আপনাদের সকল প্রশ্ন গুলি থাকবে এবং এগুলোর উত্তর পেয়ে যাবেন
  • Custom ডোমেইন
  • Blog ডিজাইন
  •  ইউনিক কনটেন্ট
  •  ইউনিক ইমেজ
  •  রিয়েল ভিজিটর
  •  সাইট ইনডেক্স
  •  ব্লগের বয়স

   

প্রশ্ন : কেমন ডোমেইন নিবো ? .xyz, .online, .ooo, . website, এমন ধরনের এক্সটেনশন ডোমেইনে গুগল এডসেন্স এপ্রুভ করে কিনা ?



 উত্তর :  আপনি যেকোনো ধরনের Top লেভেল ডোমেইন দিয়ে গুগলের কাছে এপ্লাই করতে পারেন এতে কোন সমস্যা নেই । তবে .ডট কম নিতে পারলে সব থেকে ভালো হয় কেননা .com গুগলের কাছে যেমন বিশ্বস্ত তেমনি আমাদের মত সর্বসাধারনের কাছেও .com মানে ওয়েবসাইট। 


 নতুন এক্সটেনশন যেগুলো রয়েছে এগুলো কিন্তু আমাদের কাছে তেমন পরিচিত না তো যার কারণে আমরা যদি এই সকল এক্সটেনশন দিয়ে আসলে website টি চালু করি সে ক্ষেত্রে মানুষের কাছে পরিচিতি হতে একটু না একটু সময় অবশ্যই বেশি লাগবে তাই চেষ্টা করবেন .com দিয়ে নেওয়ার জন্য আর বিকল্প তো  রয়েছে সেখানে আপনি .net  .info  .org এমন ধরনের যেকোনো এক্সটেনশন নিতে পারেন কারণ এগুলো জনপ্রিয়  ডোমেইন এক্সটেনশন ।  

.xyz  অথবা আপনার .online, .website এ জাতীয় যত ধরনের নতুন আপনার domain এক্সটেনশন রয়েছে এগুলো দিয়ে কিন্তু আপনি Google Adsense পাবেন এতে কোন ধরনের কোন সমস্যা নেই অনেকের মনেই প্রশ্ন থাকে .xyz দিয়ে আসলে Google Adsense অ্যাপ্রুভ পাওয়া যাবে কিনা তো আপনি 1000% যত বেশি মনে হয় আপনি নিতে পারেন যেগুলো দিয়ে Google Adsense Approve হবে এতে কোন সমস্যা নেই চেষ্টা করবেন সবসময় জনপ্রিয় যেই এক্সটেনশানগুলি রয়েছে সেগুলো দিয়ে আপনি website তৈরি করার ।

 প্রশ্ন : Blogspot.com অথবা সাবডোমেইনে গুগল এডসেন্স এপ্রুভ করে কিনা ?


 আপনি যদি কোন Custom ডোমেইন ব্যবহার না করতে চান শুধুমাত্র blogspot.com অথবা সাবডোমেইন ব্যবহার করে গুগল এডসেন্স পেতে চান সে ক্ষেত্রে আপনার সাইটের বয়স অবশ্যই একটা বড় বিষয় । আপনি যদি ব্লগস্পট দিয়ে করেন সেক্ষেত্রে আপনি মিনিমাম 3 মাস আপনার ব্লগের বয়স হতে হবে এবং আপনার ওয়েবসাইটে মোটামুটি ভালো ভিজিটর থাকতে হবে । আপনার ভিজিটর সংখ্যা যদি প্রতিদিন গড়ে  50 থেকে 100 হয়ে থাকে তাহলে আপনি blogspot দিয়ে গুগল এডসেন্স এপ্রুভ পাবেন কোনো ধরনের কোনো সমস্যা নেই ।




প্রশ্ন : ব্লগের ডিজাইন কেমন হতে হবে ? কোন theme অথবা টেম্পলেট ব্যবহার করলে খুব সহজেই গুগল এডসেন্স পাওয়া যাবে ?


আপনি যেকোন ধরনের THEME অথবা টেম্পলেট ব্যবহার করতে পারেন তবে যে বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে সেটি হল যে আপনার থিমটি যেন Responsive হয়ে থাকে অর্থাৎ সকল ডিভাইস থেকে যেন খুব সুন্দরভাবে আপনার ব্লগ সাইট অথবা ওয়েবসাইটটিকে দেখা  যায়

  আপনি যদি blogspot ব্যবহার করে থাকেন সে ক্ষেত্রে আপনি super seo optimised blogger template এটি ব্যবহার করতে পারেন কারণ এই টেমপ্লেটটি তে কোন ধরনের কোন error নেই এবং এটি সম্পূর্ণ রেস্পন্সিভ ।

 আপনি যদি Wordpress ইউজার হয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনি ফ্রিতে  ColorMag এই থিমটি ব্যবহার করতে পারেন এটি সম্পূর্ণ রেস্পন্সিভ এবং এটি দিয়ে খুব সহজেই Google Adsense এপ্রুভ পেয়ে যাবেন ।


 আর একটা বিষয় লক্ষ্য রাখবেন আপনি যেকোন ধরনের  Template অথবা থিম ব্যবহার করে না কেন খুব কালারফুল করার চেষ্টা করবেন না just লোগোটা আপনি ট্রাই করবেন একটু ভালোভাবে make করে দেওয়ার জন্য  ।

আপনি Photoshop দিয়ে আপনার লোগোটি আট করতে পারেন অথবা অনলাইনের মাধ্যমে বিভিন্ন লোগো মেকার রয়েছে সেখান থেকে আপনি logo তৈরি করে নিতে পারেন আর আরেকটি ব্যাপার খেয়াল রাখবেন আপনার ওয়েবসাইটের যেন কোন ধরনের নেভিগেশন প্রবলেম না থাকে  । দেখা যায় যেকোনো ইউজার যদি আপনার কোন Menu তে ক্লিক করে সেখানে কাজ করে না অথবা আপনার কোন ধরনের error শো করতেছে 404 এ জাতীয় কোন সমস্যা যেন না থাকে ।

  ফ্রী  Template  এ গুগল এডসেন্স পাওয়া যাবে কিনা এমন অনেকেই বলে থাকেন তো আসলে ফ্রী Theme   গুগল এডসেন্স পাওয়া যাবে এতে করে কোনো ধরনের কোনো সমস্যা নেই । তবে ওই থিমের যে অথর রয়েছে ফুটার থেকে তার নাম কেটে  দেয়া যেন না হয় সে বিষয়ে খেয়াল রাখবেন কারণ এতে করে ওই অথর যদি কোন সময় আপনার ব্লগ টি দেখে এবং কখনো যদি সে কমপ্লেন করে তাহলে কিন্তু আপনার গুগল এডসেন্স ডিজেবল হয়ে যাবে এ বিষয়টি অবশ্যই মাথায় রাখবেন ।

 

প্রশ্ন : গুগল এডসেন্স এপ্রুভ এর জন্য কতটি post করতে হবে এবং পোস্ট গুলো কিভাবে ইউনিক করব?


 প্রথমত বলতে চাই যে Google Adsense পাওয়ার জন্য ঠিক কতটি পোস্ট করতে হবে নির্দিষ্ট এর কোন আসলে পরিমাণ নেই অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় যে গুগোল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রভাল এর জন্য  দশটি post করলেই হয়ে যায় আবার অনেক সময় 15 টি 
অনেকে আবার বলে যে 20 থেকে 25 টা লিখতে হবে আবার অনেকে বলে আরো বেশি লিখলে ভালো হয়  । তবে আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে যেটি বলতে চাই সেটি হলো আপনি ব্লগের জন্য কমপক্ষে 20 থেকে 22 টি পোষ্ট লিখবেন কারণ বর্তমানে গুগলের Update এসেছে  সে বিষয়টি অবশ্যই গুগোল খেয়াল রেখে  আপনি 20 থেকে 22 টি পোষ্ট লিখবেন ।

 আর প্রতিটি লেখার সময় চেষ্টা করবেন অনেকে বলে যে 1000 word হতে হবে অনেকে বলে যে 600 word হতে হবে এমন আসলে কোন ধরনের কোনো বিষয় নেই মূল বিষয় যেটি সেটি হলো আপনার পোস্টটি পড়ে 
ভিউয়ার মজা পায় এমন ভাবে পোষ্ট লিখবেন । অনেকেই বিভিন্ন মতামত দিয়ে থাকে এগুলো কোন বিষয় না আপনি just খেয়াল রাখবেন যে আপনার পোষ্ট পড়ে মজা পায় কিনা ।

  ধরুন
আপনি 300 word এর একটি পোস্ট লিখেন দেখা গেল ভিউয়ার পোস্টটি পড়ে খুবই আনন্দ পেল এবং তার  যে আশা করে  পোস্টটি পড়তে এসেছিল সেটি সে পেয়ে গেল তাহলে কিন্তু আপনার পোস্টটির মূল্য রয়েছে । আর আপনি ধরুন আবার 2000 word পোস্ট লিখলেন কিন্তু ভিউয়ার  আপনার ওই 2000 word এর  ভিতরে সেই বিষয়টি পেল না সে ক্ষেত্রে সে কিন্তু  আপনার ব্লগ টিতে পুনরায় কখনোই ভিজিট করতে চাইবে না । তাই যে বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে  সেটি হল ভিউয়ার কি চায় এবং সে তার চাওয়াটা আপনার পোস্টের ভিতরে পায় কিনা ।

 এবার আসুন post কিভাবে
ইউনিক করবেন সবচেয়ে ভালো হয় আসলে আপনি যদি নিজেই লেখেন সে ক্ষেত্রে অবশ্যই ভাল হয় আপনি যখন নিজে থেকেই পোস্টটি নিজের আইডিয়া থেকে লিখবেন বিভিন্ন  ব্লগ পড়ে । লেখাগুলো  ইউনিক কিনা  চেক করার জন্য আপনি একটি টুল ব্যবহার করতে পারেন Smallseotools এটি দিয়ে আপনি আপনার পোস্টটি ইউনিক কিনা বা কত পারসেন্ট ইউনিক রয়েছে সেটি দেখতে পারবেন ।

 পোস্ট
rewrite করা যাবে  কিনা অনেকে বলবে না কিন্তু আমি বলব যে করা যাবে এতে কোন সমস্যা নেই কিন্তু  আপনার খেয়াল রাখতে হবে যে পোস্টটি  ইউনিক কিনা । Rewrite  করার জন্য বিভিন্ন অনলাইন টুল রয়েছে সেগুলো ব্যবহার করতে পারেন আর আমি আপনাদেরকে যেটি সাজেশন করব সেটি হলো আপনি Google Translate ইউজ করতে পারেন সে ক্ষেত্রে কোন ধরনের কোনো সমস্যা নেই তবে ব্যাপারটি মাথায় রাখবেন যেন আপনার পোস্টটি যেন ইউনিক হয় । আর ইউনিক এর ক্ষেত্রে  আপনার  সম্পূর্ণ পোস্টের 70 ভাগ যদি ইউনিট থাকে বাকি 30 ভাগ যদি না হয় এতে কোন ধরনের কোন সমস্যা নেই তাই এ ব্যাপারটি অবশ্যই মাথায় খেয়াল রাখবেন যেন আপনার 70 ভাগ অবশ্যই অবশ্যই ইউনিক হয় ।

 প্রশ্ন : গুগোল থেকে ইমেজ Download করে  ব্লগে ব্যবহার করা যাবে কিনা এবং এতে করে  এডসেন্স পেতে কোন সমস্যা হবে কিনা ?


অবশ্যই গুগোল থেকে image ব্যবহার করে আপনার ব্লগে ব্যবহার করতে পারবেন এতে কোন ধরনের কোন সমস্যা নেই তবে একটি ব্যাপার অবশ্যই খেয়াল রাখবেন ইমেজটি আপনি মডিফাই করে তারপর ব্যবহার করবেন । সেটি আপনি ফটোশপ দিয়ে করতে পারেন অথবা বিভিন্ন প্রকার ফটো এডিট করার জন্য tools রয়েছে সেগুলো ব্যবহার করে তারপরে আপনি পুনরায় ইমেজটিকে ব্যবহার করতে পারেন আরও একটি ব্যাপার খেয়াল রাখবেন ইমেজের ভেতর যেন 
watermark জাতীয় অন্য কারো ওয়েবসাইটের আপনার কোন ধরনের কোন লিংক যেন না থাকে অবশ্যই ভালোভাবে দেখবেন ।


 আপনি যখন ইমেজ এডিট করে ব্যবহার করবেন এতে করে গুগল এডসেন্স পেতে কোন ধরনের কোন সমস্যা হবে না ।



 প্রশ্ন : Google Adsense পেতে কত ভিজিটর এর প্রয়োজন হয় ?



 অনেকের মাথায় এই প্রশ্নটা ঘুরপাক খায় যে Google Adsense পেতে কত ভিজিটর এর দরকার আসলে গুগলের কোথাও এমন ধরনের কোন রিকোয়ারমেন্ট লেখা নেই যে এডসেন্স পেতে হলে আপনাকে কত ভিজিটর থাকতে হবে ।

 তবে আমি যে কথাটি বলবো যে ভিজিটর যদি না হয় তাহলে আপনি  Google Adsense দিয়ে কি করবেন এজন্য অবশ্যই আপনার ব্লগে যখন ভালো মানের ভিজিটর আসবে তখন যদি আপনি গুগোল এর জন্য  এপ্লাই করেন সেক্ষেত্রে আপনি খুব সহজেই আপনি গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভাল পেয়ে যাবেন । Google Adsense পাওয়ার জন্য আপনি দৈনিক গড়ে যদি  10 জন ভিজিটর আনতে পারেন সে ক্ষেত্রে আপনি খুব সহজে গুগল এডসেন্স পেয়ে যাবেন ।


 ভিজিটরের জন্য আপনি Social  মিডিয়াকে খুব ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারেন কারণ সোশ্যাল মিডিয়া  থেকে  প্রচুর পরিমানে ভিজিটর আপনি আপনার ওয়েবসাইটে নিয়ে আসতে পারেন এবং তারপর আপনি Google Adense  এর জন্য এপ্লাই করতে পারেন কোন ধরনের কোন সমস্যা এতে নেই ।

প্রশ্ন : কখন গুগল অ্যাডসেন্সের জন্য এপ্লাই করবো ?




 আমরা অনেক সময় বেশি করে দেখা যায় 10 দিনের মাথায় Google অ্যাডসেন্সের  জন্য গুগলের কাছে আবেদন করে থাকেন এটি একটি বড় ভুল কেননা দেখা যায় ওই দশ দিনে আপনি যে সকল  পোস্টগুলি আপনার ব্লগে করেছেন সেগুলো এখন পর্যন্ত গুগল index করেনি । এক্ষেত্রে Google সরাসরি আপনাকে একটি ইমেইল মেসেজ করবে যে আপনার আপনি গুগলের পলিসি ভেঙেছেন আপনার এডসেন্স এপ্রুভ করা সম্ভব নয় ।


 তাই প্রথমে যে কাজটি করবেন  আপনার ব্লগ সাইটটিকে Google Webmaster Tools এ সাবমিট করবেন এবং সাবমিট করে  আপনার ব্লগের sitemap তৈরী করে দিবেন যাতে করে গুগলের রোবট খুব সহজেই আপনার সাইটটিকে index করতে পারে এবং সেই ওয়েবমাস্টার টুল থেকে আপনি দেখে নিবেন যে আপনার বর্তমান অবস্থা ।


যখন সব পোস্টগুলি গুগলে index হয়ে যাবে তারপর আপনি গুগলের কাছে এপ্লাই করেন এতে করে কোন ধরনের সমস্যা হবে না এবং  আপনার গুগোল এডসেন্স পেতে খুবই সুবিধা হবে ।




 প্রশ্ন : ব্লগের বয়স কত দিন হলে  গুগল এডসেন্সের জন্য এপ্লাই করা যাবে ?


Google Adsense এপ্লাই করার ক্ষেত্রে অবশ্যই একটা ব্যাপার খেয়াল রাখবেন সেটি হলো আপনার ব্লগ সাইট অথবা ওয়েবসাইট টি যদি Custom ডোমেইন এর হয়ে থাকে সে ক্ষেত্রে মিনিমাম ডোমেইনের বয়স 15 দিন অথবা 30 দিনের পুরনো হয়ে থাকে আজকে একটা ডোমেইন কিনলেন এবং কালকে দশটা পোস্ট লিখে গুগলের কাছে এপ্লাই করে দিলেন এমনটি কখনোই করবেন না এতে করে Google Adsense আপনার  আবেদন টিকে রিজেক্ট করে দিবে তো অবশ্যই বিষয়টি খেয়াল রাখবেন যেন আপনার সাইটটি একটু পুরনো হয় ।

 আর আপনি যদি  Blogspot অথবা সাব ডোমেইন দিয়ে গুগল এডসেন্সের জন্য আশা করেন সেক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই সময় নিতে হবে আপনি যদি ফ্রি blogspot.com দিয়ে গুগল এডসেন্স পেতে চান সে ক্ষেত্রে আপনাকে মিনিমাম অন্তত তিন মাস অপেক্ষা করতে হবে আপনার ব্লগের বয়স মিনিমাম তিন মাস হয় এবং আপনার সাইটে যদি ভাল মানের ভিজিটর আসা-যাওয়া করে তাহলে আপনি গুগলের কাছে এপ্লাই করে দিতে পারেন আশা করি এতে করে Google Adsense পেতে কোন ধরনের কোন সমস্যা  হবে না ।



 কিভাবে গুগল Adsense পাওয়া  যায়  এ নিয়ে আজকের এই পোস্টটি আশা করি আপনাদের খুবই কাজে আসবে তারপর যদি আপনাদের কোন রকম বুঝতে অথবা কোন ধরনের প্রশ্ন থাকে তাহলে অবশ্যই পোষ্টের নিচে যে কমেন্ট বক্স রয়েছে সেখানে আপনারা কমেন্ট করে জানাবেন আর আরেকটা ব্যাপার এই পোস্টটি আপনারা Share করতে পারেন কিন্তু আশা করি আপনারা এই পোস্টটি কপি করে আপনাদের সাইটে ব্যবহার করবেন না । ভাল থাকবেন সবাই সুস্থ থাকবেন  পরবর্তী সময়ে আবার সাইটি ভিজিট করবেন  আমি আপনাদের জন্য নতুন কোন পোস্ট নিয়ে আবার হাজির হয়ে যাব আমার  এই  banglatechblog.com  এ ।


Post a Comment

0 Comments